ইরান কর্তৃপক্ষের হাতে আরও ১২জন বাহাই সদস্য গ্রেফতার!

 অনুলিপির পোস্ট সবার আগে পড়তে গুগল নিউজে ফলো করুন 👈

বাহাই নাগরিকদের বিরুদ্ধে অভিযান আরও জোরদার করেছে ইরান। ধর্মবিরোধী এবং ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে বলে ১২ জনের বিরুদ্ধে  অভিযোগ এনে তাদের গ্রেফতার করেছে। এই চলমান অভিযানের প্রতি ইরান ও বহির্বিশ্বের মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো নিন্দা জানিয়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে জানা যায়, ঐ নাগরিকদের আটক করা হয়েছে  মাজান্দারান প্রদেশের বিভিন্ন শহর থেকে। আরও বলা হয়, এর আগে ( ৩১ আগস্ট ) যে এলাকা থেকে ইরানের বৃহত্তম অমুসলিম সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ১৪ জনকে আটক করা হয়েছিল সেই একই এলাকা থেকেই এবার এই ১২জনকে আটক করা হয়।

ইরানে বর্তমানে তিন লাখ বাহাইয়ের বসবাস এবং পুরো বিশ্বে যাদের প্রায় ৫০ লক্ষ অনুসারি রয়েছে। তাদের কাছ থেকে জানা যায়, ইরানে তাদেরকে নিয়মিতই নির্যাতনের সম্মুখীন হতে হয়। তারা আরও জানায় যে, আনুষ্ঠানিকভাবেই ইরানের সংবিধানে বাহাইদের ধর্ম স্বীকৃত নয়। মূলত এই কারণেই তাদের উপর নেমে আসছে অত্যাচারের খড়গ।

আরও পড়ুন: ইরানে মৃত্যুদণ্ড দিলো দুই সমকামীকে!

এমনকি ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনিও বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে বাহাই বিশ্বাসকে ‘কাল্ট‘ বলে আখ্যা দেন। এর আগে, ২০১৮ সালে এক ধর্মীয় ফতোয়ার মাধ্যমে বাহাইদের সঙ্গে যেকোন ধরণের ব্যবসায়িক লেনদেনসহ যোগাযোগ রাখতে প্রকাশ্যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

বরাবরই সংখ্যাগুরু কর্তৃক সংখ্যালঘুরা নির্যাতিত হয়ে আসছে বিশ্বজুড়ে। যারা সংখ্যায় কম তারা মার খাচ্ছে, যারা বেশি তারা অত্যাচার করছে। ঘুরে ফিরে সবার মূলনীতি যেন একই। পরিসংখ্যান ঘেটে দেখা যায়, ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামিক প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে তাদের ধর্মের কারণে কয়েক শত বাহাইদের আটক করে কারাবন্দী করা হয়। এখানেই শেষ নয়, অন্তত দুইশ বাহাইকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয় বা আটকের পর তাদের সম্পর্কে আর কোন খবর পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: শক্তিশালী ভূমিকম্পে চীনে নি’হত সাতজন!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Adblock Detected

Dear Viewer, Please Turn Off Your Ad Blocker To Continue Visiting Our Site & Enjoy Our Contents.