চীনে ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৪!

 অনুলিপির পোস্ট সবার আগে পড়তে গুগল নিউজে ফলো করুন 👈

চীনে ২০১৭ সালের পর থেকে হওয়া সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা ৭৪ এ এসে দাঁড়িয়েছে। দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় সিচুয়ান প্রদেশে ৬ দশমিক ৮ মাত্রার এই দূর্যোগে ধ্বসে পড়েছে বহু ভবন এবং বাণিজ্যিক অবকাঠামো।  ভূমিকম্পের পর থেকেই দুর্গতদের জীবন বাঁচাতে প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন উদ্ধারকারীরা, কিন্তু তারপরও মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

তবে ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল সিচুয়ানের লুদিং কাউন্টিমুখি সড়কগুলো উদ্ধারকর্মীরা ফের চালু করতে পেরেছেন বলে বুধবার দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমের খবরে নিশ্চিত করা হয়। বার্তা সংস্থা রয়টার্স চীনের পিপলস ডেইলির বরাত দিয়ে জানায়, মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত আরও মোট ২৫৯ জন আহত ও ২৬ জন নিখোঁজ ছিলেন।

এই ভূমিকম্পে টেলিযোগাযোগ, পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহের অবকাঠামোগুলোও ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন: শক্তিশালী ভূমিকম্পে চীনে নি’হত সাতজন!

চীনের সংবাদ চ্যানেল সিজিটিএন জানিয়েছে, তিন শতাধিক বেইস স্টেশন ও ১৩৪ কিলোমিটার অপটিক ফাইবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং ১৬ হাজারের বেশি লোক যোগাযোগ নেটওয়ার্ক থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মঙ্গলবার সন্ধ্যা অব্দি ৭৭টি বেইস স্টেশন চালু করা সম্ভব হয়েছে এবং প্রায় ২২ হাজার পরিবারের বিদ্যুৎ সংযোগ সচল করা গেছে।

নিরলস পরিশ্রম করে যাওয়া দমকলকর্মীরা ধ্বংসস্তূপের মধ্যে আটকা পড়া অন্তত ৯২ জনকে উদ্ধার করে গাড়িযোগে নিরাপদ স্থানে পাঠিয়ে দিয়েছেন। তারা প্রায় ৩ হাজার বাড়ি পরিদর্শন করে সবকিছু পরীক্ষা করে দেখেছেন এবং আরও লোকজনের খোঁজে কাজ করে যাচ্ছেন।

এর আগে মঙ্গলবার লুদিং কাউন্টি থেকে ১১ হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বুধবার ভোরে চীনের ভূমিকম্প নেটওয়ার্ক সেন্টার লুদিংয়ে ৩ মাত্রার একটি পরাঘাত রেকর্ড করেছে। ভূপৃষ্ঠের ১২ কিলোমিটার গভীরে যার উৎপত্তি হয়।

এদিকে বুধবার থেকে ভূমিকম্প দুর্গত অঞ্চলটিতে ভারি বৃষ্টিপাত শুরু হতে পারে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে। এতে উদ্ধারকাজ আরও কঠিন হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : ইরানে মৃত্যুদণ্ড দিলো দুই সমকামীকে!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Adblock Detected

Dear Viewer, Please Turn Off Your Ad Blocker To Continue Visiting Our Site & Enjoy Our Contents.