লাইফস্টাইলস্বাস্থ্য ও লাইফস্টাইল

ঘরে বসেই শীতের আগে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ান!

সামনে আসছে শীতকাল। আর শীতেই অন্যান্য সময়ের চেয়ে আমাদের ত্বক বেশি শুষ্ক, রুক্ষ ও মলিন হয়ে যায়। শীতের সময় চাইলেও ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনা কঠিন হয়ে যায়। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে অনেকে পার্লারেও যান। আবার অনেকে সময় ও সুযোগের অভাবে যেতে পারেন না। পার্লারে যাওয়াটা ব্যয়বহুলও বটে। তাই ঘরে বসেই অল্প কিছু উপাদানে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে পারেন শীত আসার আগে থেকেই। কিন্তু কীভাবে বাড়াবেন! তো চলুন জেনে নিই— ঘরে বসেই শীতের আগে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর উপায়!

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর উপায়

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে কয়েকটি পদ্ধতি অনুসরণ করলেই ফলাফল পাবেন। আর এইজন্য যা যা লাগবে তা হলো:

১| গোলাপ জল

২| কটন প্যাড

৩| চিনি

৪| লেবুর রস/লেবু

৫| বেসন

৬| কাঁচা হলুদ /হলুদ গুঁড়া

৭| কাঁচা দুধ

৮| কলা

১| মুখ পরিষ্কার করে নিন:

মুখে কোনো কিছু লাগানোর পূর্বে সবচেয়ে জরুরি হলো মুখ পরিষ্কার করে নেওয়া। তাই প্রথমে মুখ পরিষ্কার করে নিন। এইজন্য গোলাপ জল ও একটি কটন প্যাড নিয়ে নিন। এভার কটন প্যাডে গোলাপ জল লাগিয়ে পুরো মুখ ও গলা ভালো করে মুছে নিন। এরপর কিছুক্ষণ এভাবে রেখে স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। দেখনে ত্বক অনেকটা সতেজ ও চকচকে লাগছে। গোলাপ জল খুব ভালো পরিষ্কারক ও এটি ত্বকের আর্দ্রতা বৃদ্ধি করে। কেন না, গোলাপ জলে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট।

আরও পড়ুন# কীভাবে চিনবেন প্রকৃত ভালোবাসার মানুষকে!

২| স্ক্রাবিং করুন:

ত্বক উজ্জ্বল করতে হলে ত্বকের মৃত কোষ ও ময়লা দূর করতে হবে। আর মৃত কোষ ও ত্বকের ময়লা দূর করতে ক্রাবের বিকল্প নেই। তাই দ্বিতীয় ধাপে আপনাকে স্ক্রাবিং করতে হবে। তবে বাজারের স্ক্রাব নয়, বরং ঘর থাকা দুইটা উপাদান দিয়েই স্ক্রাব করে নিতে পারবেন। আর তা হলো লেবুর রস ও চিনি।

এক্ষেত্রে একটা বাটিতে পরিমাণমতো চিনি নিয়ে নিন৷ এরপর এতে চিনি অনুসারে লেবুর রস দিন, যাতে একটা দানা দানা মিশ্রণ হয়। এবার দুই হাতের আঙুলে স্ক্রাব নিয়ে মুখে ও গলায় লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। এভাবে ৫ থেকে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। ম্যাসাজ হয়ে গেলে একটা টিস্যু বা পরিষ্কার ভেজা তোয়ালে দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। তবে একটা বিষয় খেয়াল রাখবেন, আপনার ত্বকে লেবু আসলে শ্যুট করছে কিনা। চাইলে আগে টেস্ট করে নিন। যদি লেবু শ্যুট না করে তবে কেবল চিনি ও পানি দিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে নিন।

৩| গোল্ডেন ফেসপ্যাক লাগান:

গোল্ডেন ফেসপ্যাক আমাদের ত্বক উজ্জ্বল করতে বেশ কার্যকরী। তবে বাজারের কোনো গোল্ডেন ফেসপ্যাক না। বরং বাসায় তৈরি করা। স্ক্রাবিং এর পর ত্বকে অবশ্যই ফেসপ্যাক লাগাতে হবে। তাই ঘরেই বানিয়ে নিন গোল্ডেন ফেসপ্যাক। আর এই জন্য লাগবে মাত্র তিনটি জিনিস তা হলো- হলুদ, দুধ ও বেসন।

প্রথমে সম পরিমাণ বেসন ও হলুদ একটি বাটিতে নিয়ে নিন। এবার এতে দুধ দিয়ে একটা ঘন পেস্ট তৈরি করে নিন। এখন মিশ্রণ বা পেস্টটি একটি ব্রাশের সাহায্যে মুখ ও গলায় ভালো করে লাগিয়ে নিন। এভাবে ১০-১৫ মিনিট রাখুন। এরপর স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন ত্বক অনেকটা উজ্জ্বল ও সতেজ লাগছে।

৪| ত্বকের শুষ্কভাব দূর করতে ফেসপ্যাক:

আপনার ত্বক যদি শুষ্ক হয় তবে ওপরের গোল্ডেন প্যাক লাগানোর পর এই প্যাকটিও লাগাতে পারেন। অথবা, একদিন গোল্ডেন প্যাক ও একদিন এই ফেসপ্যাক পালাক্রমে লাগাতে পারেন।

আর ত্বক খুব শুষ্ক হয় ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখার জন্য ব্যবহার করুন পাকা কলা ও দুধের ফেসপ্যাক। এক্ষেত্রে প্রথমে একটি পাকা কলা নিয়ে তা ভালো করে থেঁতলে একটি পেস্ট বা মিশ্রণ বানিয়ে নিন। এরপর এর সাথে দুধ মিশান ভালো করে। এবার এই মিশ্রণটি মুখে ও গলায় ভালো করে লাগিয়ে নিন। এভাবে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। ২০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে নিন। ব্যাস এভাবে নিয়মিত লাগালে ভালো ফল পাবেন।

তবে মনে রাখবেন, ত্বকে প্যাক লাগানোর পর মুখ ধুয়ে ভালো করে মুখ শুকিয়ে নেবেন। এরপর ত্বকে একটি ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার লাগাবেন। আর যেকোনো জিনিস ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই প্যাচটেস্ট করে নেবেন। দেখে নেবেন, উপাদানটি আপনার জন্য ঠিক কিনা। যদি কোনো উপাদানে আপনার অ্যালার্জি থাকে, আর আপনি ওটা ব্যবহার করেন, তবে আপনার ত্বকে তা ক্ষতিকর প্রভাব ফেলবে। তাই আগে হতেই সাবধান হোন।

যাই হোক, আজকের মতো এখানেই। আশাকরি এই আর্টিকেলটি আপনার কাছে ভালো লেগেছে। আর যদি আপনার কাছে এই আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকে তবে অবশ্যই অন্যদের সাথে শেয়ার করবেন এবং এই ধরনের আরও আর্টিকেল পেতে অনুলিপির সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button