বিখ্যাত জায়গা

বিশ্বের দীর্ঘতম ৭টি সেতু

সেতু মানবজাতির সবচেয়ে প্রাচীন আবিষ্কারগুলির মধ্যে একটি। আমাদের দূরবর্তী পূর্বপুরুষরা এই সেতুগুলি ছাড়া দীর্ঘ দূরত্ব ভ্রমণ করতে পারত না কারণ নদী এবং অন্যান্য বাধা বহু কিলোমিটারকে আলাদা করে।প্রথমে, এগুলি সরল ছিল এবং তক্তা এবং দড়ি দিয়ে তৈরি। কিন্তু সময়ের সাথে সাথে, মানুষ কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ দূরত্বের উল্লেখযোগ্য কাঠামো তৈরি করতে শুরু করে।বর্তমানে উন্নতির শুয়া পেয়েছে।

১.ইয়াংকুন সেতুঃ বেইজিং তিয়ানজিন আন্তঃরেল যোগাযোগের জন্য সেতুটি নির্মাণ করা হয় ইয়াংকুন ব্রিজ। সেতুটি ৩৫.৮ কিলোমিটার দীর্ঘ। এই সেতুতে ঘণ্টায় ৩৫০ কিলোমিটারের বেশি গতিতে ট্রেন চলাচল করতে পারে। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও গভীর পর্যবেক্ষণের পর ২০০৭ সালে চলাচলের জন্য সেতুটি উন্মুক্ত করা হয়।

২.হ্যাংঝৌ বে সেতুঃ বিশ্বের নবম বৃহত্তম দীর্ঘ সেতু হ্যাংঝৌ বে। এটিও চীনে অবস্থিত। সেতুটি চীনের জিয়াঝিং ও নিংবো শহরকে জেঝিয়াং প্রদেশের সঙ্গে সংযুক্ত করেছে। ২০০৭ সালে নির্মাণ কাজ শেষ হলেও সেতুটি ২০০৮ সালে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। সেতুটি ৩৫.৬৮ কিলোমিটার দীর্ঘ। এবং এটি নির্মাণ করতে ১১.৮ বিলিয়ন ইয়ান খরচ হয়েছে।

৩.রানইয়াং সেতুঃ চীনের ইয়াংৎজি নদীর ওপরে রানইয়াং ব্রিজটি নির্মান করা হয়েছে। সেতুটি জেনজিয়াং প্রদেশের সঙ্গে ইয়াংহো প্রদেশকে সংযুক্ত করেছে। ২০০০ সালের অক্টোবরে সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। নির্মাণ কাজ শেষ হয় ২০০৫ সালে।

৪.ম্যানচ্যাক সোয়াম্প সেতুঃ বিশ্বের দীর্ঘতম সেতু হলাে ম্যানচ্যাক। এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অবস্থিত। ব্রিজটি লুইসিয়ানার মানচাক জলাভুমির উপর দিয়ে বয়ে গেছে। এই সেতুটির দৈর্ঘ্য ৩৬.৫৯ কিলোমিটার এবং প্রস্থ ৯৫ মিটার। এই মানচাক জলসেতুটি 1969 সালে জনসাধারণের জন্য প্রথম খুলে দেওয়া হয়েছিল। আর এই সেতুটি নির্মাণ করতে ব্যয় হয়েছিল মাইল প্রতি 7 মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এই সেতুটি বিশ্বের দীর্ঘতম টোল মুক্ত সড়ক সেতু।

৫.উহান মেট্রো সেতু, চীনঃ বিশ্বের দীর্ঘতম সেতুর তালিকায় নবম স্থানে রয়েছে উহান মেট্রো সেতু। এই সেতুটির চিনের উহান শহরে অবস্থিত। স্বাভাবিকভাবে এটাকে সেতুর মতো দেখালেও আসলে এটা কিন্তু কোন সেতু নয়। এটি বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘতম চলমান মেট্রো সিস্টেম ভায়াডাক্ট। এ সেতুটি চালু হয় ১৯৯৫ সালে। আর এই রেলপথটি নির্মাণ করতে ব্যয় করা হয়েছিল প্রায় 3.9 বিলিয়ন মার্কিন ডলার। তবে এই সেতুটি ২০০৩ সালে সংস্কার করার পর ২০০৪ সালে তা আবার উন্মুক্ত করা হয়।

আর পড়ুনঃ পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ১০টি দেশ।

৬.ওয়েনান ওয়েইহে গ্র্যান্ড ব্রিজ, চীনঃ এই ভায়াডাক্টটি Zhengzhou-Si’an হাই স্পিড রেলপথের একটি অংশ। এটি ৭৯.৭ কিমি দীর্ঘ, দুবার ওয়েই নদী এবং অন্যান্য কয়েকটি নদী এবং অন্যান্য পরিবহন পাস অতিক্রম করে। এটি ২০০৮ সালে সমাপ্ত হওয়ার পর থেকে এটি দীর্ঘতম সেতু হয়ে দাঁড়িয়েছে, কিন্তু ২০১০ সালে তাদের নির্মাণের পরে এটি অন্য দুটিকে ছাড়িয়ে গেছে৷ এটি আনুষ্ঠানিকভাবে ২০১০ সালে খোলা হয়েছিল৷ এটি উচ্চ-গতির রেলের জন্যও বোঝানো হয়েছে৷

৭.তিয়াজিন গ্র্যান্ড ব্রিজ, চীনঃ বেইজিং-সাংহাই রেলপথের ল্যাংফাং এবং কিংজিয়ান অংশের মধ্যে সেতুটি ১১৩.৭ কিলোমিটার দীর্ঘ। এটি বিশ্বের দ্বিতীয় দীর্ঘতম সেতু, যা ২০১১ সালে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড দ্বারা রেকর্ড করা হয়েছে। এটি লাংফাং এবং কিংজিয়ান শহরের মধ্যে চলে, এটির প্রধান অবস্থান তিয়ানজিনের হেবেই শহর। এটি সম্পূর্ণ হতে চার বছর লেগেছে। এটি বিশ্বের শীর্ষ ১০ দীর্ঘতম সেতুর মধ্যে অন্যতম।

Back to top button

Opps, You are using ads blocker!

প্রিয় পাঠক, আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন, যার ফলে আমরা রেভেনিউ হারাচ্ছি, দয়া করে অ্যাড ব্লকারটি বন্ধ করুন।