জাতীয়সন্দেশ

বিয়ের নামে ফাঁদে ফেলা সেই খুলনার নীলা এখন কারাগারে!

খুলনার সুলতানা পারভীন নীলা ওরফে বৃষ্টি বিয়ের নামে একাধিক পুরুষকে ফাঁদে ফেলে নিঃস্ব করত। সম্প্রতি সেই খুলনার বহুল আলোচিত নীলাকে অবশেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ঢাকার ১৪ নং আদালতে নীলা তার বিরুদ্ধে আনা প্রতারণা মামলার জামিনের আবেদন দাখিল করে। তবে শুনানি শেষে আদালতের বিচারক মাইনুল হোসেন তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। অন্যদিকে, নীলার বড়ো ভাই শফিকুল আলম বিপ্লবেরও জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।

নীলার সাবেক ৭ম স্বামী এম রহমান প্রতারণার অভিযোগে এনে দায়েরকৃত মামলার আইনজীবী ঢাকা জজ কোর্টের অ্যাডভোকেট ওয়াদুদ শাহীন এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এই বিষয়ে সিআইডি ঢাকার এসআই রফিকুল ইসলাম বলেন, একাধিক বিয়ে করা সুলতানা পারভীন নীলা প্রতারণার ফাঁদে ফেলে এখন অবধি ৮ এর অধিক পুরুষকে বিয়ে করেন। এর মধ্যে তার ৭ম স্বামী এম রহমান নীলার বিরুদ্ধে ঢাকার আদালতে প্রতারণার মামলা দায়ের করেন। আর সেই মামলার দায়িত্ব পান ঢাকার সিআইডি। এরপর সিআইডি দীর্ঘ তদন্ত শেষে ৪ আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় এবং আদালত গত ১৩ সেপ্টেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়োনা জারি করেন।

তিনি আরও বলেন— নীলার বাসার ঠিকানাও ভুয়া। সে একেক সময় একেকজনকে একেক পরিচয়ে প্রতারণা করে বিয়ে করে। এরপর এক একজনকে পুরোপুরি নিঃস্ব করে আবার অন্য একজনকে বিয়ে করে। এভাবে মোট ৮টি বিয়ে করেছে।

তাছাড়াও নীলার একাধিক সাবেক স্বামীদের ভাষ্যমতে— নীলার মূল সম্পদই হলো তার শারীরিক গঠন ও রূপ-যৌবনই। সে এগুলোকে পুঁজি করে বিয়ের নামে ধনাঢ্য ও পদস্থ কর্মকর্তা, চাকরিজীবীদের ফাঁদে ফেলেছেন। আর হাতিয়ে নিয়েছে বহু অর্থ-সম্পদ।

জানা যায়, সুলতানা পারভীন নিলা এখন অবধি ৮ এর অধিক বিয়ে করেছেন। সে বিয়ে করে কিছুদিন পর স্বামীদের ছেড়ে দেয়। আর ছেড়ে দেওয়ার সময় মোটা অংকের দেনমোহর নেয় এবং এর আগে বিভিন্ন ভাবে বাড়ি-গাড়ি হাতিয়ে নেয়। নীলার মূল টার্গেটই হলো সম্পদশালী, ব্যবসায়ী, উচ্চপদস্থ চাকরিজীবী ও প্রবাসী পুরুষ।

নীলা প্রথমে নিজের টার্গেট ঠিক করে। এরপরে আস্তে আস্তে ওই টার্গেটের ব্যক্তির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে এবং নিজের দেহের সৌন্দর্য ও কথার প্যাঁচে তাদের আটকে বিয়ে করে নেয়। এরপর কিছুদিন পর তালাক দেয়। আর এরপর আবার নতুন টার্গেট ঠিক করে। এভাবেই সে ৮ এর অধিক বিয়ে করে।

Back to top button

Opps, You are using ads blocker!

প্রিয় পাঠক, আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন, যার ফলে আমরা রেভেনিউ হারাচ্ছি, দয়া করে অ্যাড ব্লকারটি বন্ধ করুন।