স্বাস্থ্য ও লাইফস্টাইল

বাচ্চার গায়ের রং ফর্সা করতে গর্ভাবস্থায় খান এই ৭ টি খাবার

বর্তমানে আমাদের দেশে সবাই সৌন্দর্যের পাগল। কারো বাচ্চা যদি কালো হয় তাহলে মন খারাপ করে বসে থাকে। আসলে এটা ঠিক নয়। সুন্দর নাকি কালো হবে তা নির্ভর করবে বাবা-মার জিনের উপর। সন্তান বাবা এবং মা উভয়েরই DNA পেয়ে থাকে। যদি বাবা কালো হন এবং মা যদি ফর্সা হয় তাহলে সন্তান কালো হবার সম্ভাবনা আছে।

আবার বাবা যদি ফর্সা হন এবং মা যদি কালো হয় তাহলেও সন্তান কালো হবার সম্ভাবনা আছে। এখানে জীন এর প্রকট, প্রচ্ছন্ন এর বেপার আছে। ফর্সা বা কালো বড় কথা নয়। সুস্থ বাচ্চা জন্ম দেওয়াটাই বড় কথা। সাধারণত আমাদের দেশে গর্ভবতী মা আগত সন্তান যেন ফর্সা হয়। তবে একটা সুস্থ সবল সন্তানের জন্য একজন গর্ভবতী মায়ের সব রকম পুষ্টিকর খাবার খাওয়া উচিৎ।

ডিম: বিশ্বাস করা হয় যে ডিমের সাদা অংশ খেলে বাচ্চার গায়ের রং ফর্সা হয়। কিন্তু এটাও আবশ্যক যে গর্ভবতী অবস্থায় মহিলাদের প্রত্যহ একটি করে সিদ্ধ ডিম খাওয়া উচিৎ। ডিমের মধ্যে থাকা পুষ্টি শিশুর ব্রেনের বিকাশ ঘটায়। তবে সত্য এই যে গর্ভাবস্থায় নিয়মিত ডিম খাওয়া মায়ের জন্য খুব জরুরী। ডিমের অধিকাংশ পুষ্টি গুণ এর ক্সুমের মাঝেই থাকে। তাই কুসুম খাওয়া বাদ দেয়া চলবে না।

গরুর দুধ: গর্ভবতী মহিলাদের দুধ পান করা অত্যাবশ্যকীয়। দুধ শিশুর শরীর গঠনের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। প্রচলিত ধারণা মোটে দুধও ত্বকের রঙ ফর্সা করতে সহায়ক।

জাফরান দুধ: অনেক মহিলা গর্ভবতী অবস্থায় জাফরান দেয়া দুধ পান করে থাকেন। মনে করা হয় জাফরান গর্ভের শিশুর গায়ের রঙ ফর্সা করে।

আরো পড়ুন: বুদ্ধিমান সন্তান পেতে গর্ভবতী মায়ের যা করণীয়!

কমলা: কমলা ভিটামিন সি সমৃদ্ধ তাই শিশুর শরীর গঠনের জন্য অপরিহার্য। গর্ভাবস্থায় কমলা খেলে শিশুর ত্বক ভালো হবে। শুধুমাত্র ত্বকের সৌন্দর্যই কোন মানুষের একান্ত আকাঙ্ক্ষিত বিষয় হতে পারে না। তাই গর্ভবতী মায়েদের উচিত একটি সুস্থ্, মেধাবী ও স্বাভাবিক শিশুর জন্মের জন্য চেষ্টা করা। এজন্য পুষ্টিকর খাবার গ্রহণের পাশাপাশি নিজের জীবনাচরণের ইতিবাচক পরিবর্তন আনা প্রয়োজন।

টমেটো: টমেটোতে লাইকপেন থাকে যা সূর্যের ক্ষতিকর আল্ট্রা ভায়োলেট রে এর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে ত্বককে রক্ষা করে। টমেটো খেলেও শিশুর গায়ের রং ফর্সা হয়।

বাংলাদেশেসহ বিশ্বের সকল খবর সবার আগে জানতে অনুলিপির সাথেই থাকুন।

Back to top button

Opps, You are using ads blocker!

প্রিয় পাঠক, আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন, যার ফলে আমরা রেভেনিউ হারাচ্ছি, দয়া করে অ্যাড ব্লকারটি বন্ধ করুন।